AVG Internet Security 2012- ২০১৮ সাল পর্যন্ত মেয়াদ ( ১০০% কাজ করে)

কথায় আছে- ” পুরান চালে ভাতে বাড়ে।”  তাই আজ আপনাদের পুরান একটি অ্যান্টিভাইরাস এর সাথে পুনরায় পরিচয় করিয়ে দিচ্ছি । পুরানো হলেও কাজ করে ১০০%।

এটি হল AVG Internet Security 2012.  আমি আপনাদেরকে ফ্রী সিরিয়াল কী দিয়ে দিবো, যার  মাধ্যমে আপনারা এটি ২০১৮ সালের ফেব্রুয়ারী

মাস পর্যন্ত আপনার পিসিকে ভাইরাস মুক্ত রাখতে পারেন।

এজন্য আপনাকে যা যা করতে হবে-

১.এখান থেকে AVG Internet security 2012 ফাইলটি ডাউনলোড করে নিন

২. আপনার কম্পিউটারে এটি ইন্সটল করুন

৩. অ্যান্টিভাইরাসটি আপডেট করে নিন

৪. AVG Internet Security 2012 এর মেনুতে Help এ ক্লিক করে Active এ ক্লিক করুন

৫. 8MEH-RFR8J-PTS8Q-92ATA-O4WHO-JEMBR এই সিরিয়াল কী এন্টার করুন

আপনার কাজ কমপ্লিট। নিয়মিত আপডেট করুন। আপনার অ্যান্টিভাইরাসটি আদৌ কাজ করে কিনা তা জানার জন্য এখানে ক্লিক করে এই ভাইরাসটি ডাউনলোড করুন। যদি আপনার অ্যান্টিভাইরাস আসলেই কাজ করে তাহলে ভাইরাসটি ডিলিট করে দিবে আপনার অ্যান্টিভাইরাস।

সবাই ভাল থাকবেন। আর পোস্টটি ভাল লাগলে like & share করবেন।

ধন্যবাদ সবাইকে।

সিম না খুলেই জিপি মডেমে টাকার ব্যালেন্স দেখুন!!!!!!!!

গ্রামীণফোন মডেমে আপনার অবশিষ্ট ডাটার পরিমাণ আপনি ৫০০০ তে মেসেজ করেই জানতে পারবেন। But টাকার (*৫৬৬#) ব্যালেন্স জানতে হলে আপনাকে মডেম থেকে সিম টি খুলতেই হত! সিমটি খুলে মোবাইলে ভরে তারপর এতদিন ব্যালেন্স চেক করতেন।বারবার মডেম থেকে সিম খুলার কারণে বহু মডেম নষ্ট হয়ে গেছে। আসলে আমার মা’র অফিসের মডেমটি কিছুদিন আগে নষ্ট হয়ে গিয়েছিল বার বার সিম খুলার কারণে। এরপর মাথায় বুদ্ধি এল যে গুগলে সার্চ দিয়ে এর কোন সমাধান বের করতে পারি কিনা। অবশেষে সমাধান পেয়ে গেলাম। এখন সমাধানটি আমি আপনাদের সাথে শেয়ার করবো।

আর কোন মডেম নষ্ট হবে না>>>>>>সিম খোলার ঝামেলা অবশেষে শেষ>>>>>>>আমি আজ এমন একটি টিপস নিয়ে এলাম যার সাহায্যে সিম না খুলেই মডেমেই টাকার ব্যালেন্স সহ যেকোন ব্যালেন্স দেখতে পারবেন!!!!!!!!

এজন্য আপনাকে যা যা করতে হবেঃ

প্রথমে নিচের ডাউনলোড লিংক থেকে USSD Activator Plugin নামক একটি সফটওয়্যার টি ডাউনলোড করে নিন।

http://www.mediafire.com/?26q071b0qqf9ltg

(বিঃদ্রঃ আপনার মডেম এর মডেল জানতে মডেম এর পিছনের দিকে লক্ষ্য করুন। সেখানে মডেল নম্বরটি জানতে পারবেন।)

ডাউনলোড এর শেষে সফটওয়্যারটি আনজিপ করে আপনার পিসিতে Install করুন।

এবার আপনার মডেম টি রির্ষ্টাট দিন। (জিপি ইন্টারনেট সফটওয়্যার বন্ধ করে মডেম টি আপনার পিসি থেকে খুলুন এবং তারপর আবার লাগান)

পুনরায় জিপি ইন্টারনেট সফটওয়্যারটি চালু করুন। এবার উপরের দিকে টুলবারের শেষে নতুন একটি টুল USSD  যুক্ত হয়েছে। এখন ওই টুলে ক্লিক করেই আপনি *৫৬৬# ডায়াল করে ব্যালেন্স জেনে নিতে পারেন। এছাড়াও মোবাইলের মাধ্যমে যে সমস- কাজ করা যায় সেগুলোও আপনি এই টুলের সাহায্যে করতে পারবেন।

 

আশা করি এই পোষ্টটি আপনাদের উপকারে আসবে।

ধন্যবাদ।।।।।।।।।।।।

ক্যাসপারস্কি ইন্টারনেট সিকুরিটি ২০১২ আজীবন মেয়াদ

ক্যাসপারস্কি ইন্টারনেট সিকুরিটি ২০১২ আজীবন এর জন্য

প্রথম এ এই লিঙ্ক থেকে ক্যাসপারস্কি ইন্টারনেট সিকুরিটি ২০১২ এর ট্রাল ভার্সন ডাউনলোড  করে নেন ……

ডাউনলোড  লিঙ্ক ###

এবার ডাউনলোড করা হয়ে গেলে ।  ক্যাসপারস্কি ইন্টারনেট সিকুরিটি ২০১২ কে আপনি ট্রাল হিসাবে অ্যাক্টিভ করবেন । কিভাবে অ্যাক্টিভ করবেন যদি না জানেন । তাহলে এই লিঙ্ক থেকে দেখে নেন । দেখতে হলে এখানে ক্লিক করেন,

আমি বার বার বলে রাখছি , যখন ইন্সটল করবেন তখন ট্রাল হিসাবে অ্যাক্টিভ করবেন । এই বার অ্যাক্টিভ করা হয়ে গেলে ,নরমাল ভাবে আপনি একে আপডেড করে নেন । আপডেড করা হয়ে গেলে । নিচের নিক থেকে এটা ডাউনলোড করে ইন্সটল করে দেন । আর মজা দেখেন . আপনার ট্রাল কখনো আর শেষ হবে না , আজীবন এর জন্য হয়ে গেলো ।আর ট্রাল টা ইন্সটল করার পরও আপনি আপডেড করতে পারবেন .কোন প্রব্লেম হবে না ।

ডাউনলোড লিঙ্ক ###

ডাউনলোড করা হয়ে গেলে উপরের পিকচার এর মতো করে …Reset-a  ক্লিক  করতে হবে । ডান । এখন পিসি কে রিস্টার্ট করে নেন ।আর এ ভাবে যখন আপনার ট্রাল ভার্সন টি শেষ হয়ে যাবে তখন নিজে নিজে আবার অ্যাক্টিভ হয়ে যাবে । তার পর আপডেড চাইলে আপডেড করে নিবেন ।

RESET করার আগে এই নিয়ম টা ফলো করেনঃ

১.Settings > self defenc > Turn off

২. Kaspersky টাকে exit করে নিবেন.

৩. Taskbar থেকেও exit করে নিতে হবে ।

আর যদি এই RESET টা কাজ না করে ,তাহলে এখান থেকে এই টা ডাউনলোড করে নেন ।এটা দিয়ে চেষ্টা করেন । এখানে

RESET করার আগে এই নিয়ম টা ফলো করেনঃ

১.Settings > self defenc > Turn off

২. Kaspersky টাকে exit করে নিবেন.

৩. Taskbar থেকেও exit করে নিতে হবে ।

৪. Run TR_KIS-12.0.0.374tr.bat File as ADMINISTRATOR

এবার আরাম করে ব্যবহার করতে থাকেন  ক্যাসপারস্কি ইন্টারনেট সিকুরিটি ২০১২ আজীবন এর জন্য. ধন্যবাদ ।

 

এ ছাড়া যদি কারো কোন প্রবলেম হয় ।তাহলে নিচের লিঙ্ক থেকে বইটা ডাউনলোড করেন। ফলো করেন।

ডাউনলোড করার জন্যঃ এখানে 

ফেসবুক এ বাংলা ফন্ট সমস্যা

আমরা অনেকেই ফেসবুক এ বাংলা ফন্ট এ সমস্যা ফাচে করি। এর কারন হচ্ছে ফেসবুক এর ডিফল্ট ইউনিকোড খুবই ছোট, তাই এটা ঠিকমত শো করে না।

# সমাধানঃ

Firefox এর জন্যঃ

টপ মেন্যু বার থেকে Tools এ যান

ক্লিক Content tab, Font & Color part থেকে সিলেক্ট করুন ‘Advanced..’

এরপর নিচের মত>>>>>

Select Font For —-> Bengali Proportional —> Sherif (Size : 16) Select any bangla unicode font (eg. SolaimanLipi, or SiyamRupali) for Sherif box Set Minimum Font Size : 16 and Click on OK

আপনার কাজটি সম্পন্ন হয়ে গেলো ।

# একনজর এ স্টেপটা আবার দেখে নিন-

Tools–>Options–>Content (Tab)–>’Advanced..’–>Font For : Bengali –> Proportional : Sherif (Size : 16)–> Sherif : SolaimanLipi –>Set Minimum Font Size : 16 –> OK

আপনার পাসওয়ার্ড সুরক্ষিত করুন !!

‘আস্সলামূআলাইকুম’

বর্তমানে আমরা অনেকেই ইন্টারনেটে কাজ করি ।এখানে বিভিন্ন‌ সময় পাসওয়ার্ড দেওয়ার প্রয়জন পড়ে ।আপনার ইন্টারনেটের গোপনীয়তা সুরক্ষিত করার প্রথম পদক্ষেপ হল একটি এমন পাসওয়ার্ড তৈরি করা যা অস্থায়ী/স্থায়ী ব্যাবহারকারী বা কম্পিউটার প্রোগ্রামের দ্বারা সহজেই আন্দাজ করা যাবে না ৷

বিশেষকরে বিভিন্ন ইমেইলের সাইটগুলোতে পাসওয়ার্ড তৈরির নিয়মাবলি থাকলেও অনেক সময় আমরা তা লক্ষ‌করি না। তাই,বিভিন্ন সাইট ঘেটে আমি শুধুমাত্র‌ আপনাদের জন্য সুরক্ষিত পাসওয়ার্ড তৈরি করার কিছু টিপস শেয়ার করলাম।

#  একটি সুরক্ষিত পাসওয়ার্ড তৈরি করার টিপস:

* বিরাম চিহ্ণগুলো এবং/অথবা সংখ্যাগুলোকে অন্তভূর্ক্ত করুন৷

* একই রকম দেখতে অন্য অক্ষর ব্যবহার করুন।যেমন ‘O’ বদলে শূন্য।

* ছোট আকারের অক্ষর ব্যবহার করুন৷

* সঠিক শব্দের বিকল্প ব্যাবহার করুন যেমন ‘Love to Laugh’ এর জন্য ‘Luv 2 Laf’

* প্রচলিত শব্দ নির্বাচন করা থেকে বিরত থাকুন।

* সংখ্যা,বর্ণ,চিন্হ ইত্যাদি মিশিয়ে পাসওয়ার্ড সাজান।

যে জিনিসগুলি না করা ভাল:

* একাধিক গুরুত্বপূর্ন অ্যাকাউন্ট যেমন,Gmail ও অনলাইন ব্যাঙ্কিং-এর ক্ষেত্রে পাসওয়ার্ডকে পুনরায় ব্যবহার করবেন না ৷

* এমন পাসওয়ার্ড ব্যবহার করবেন না যাতে ব্যক্তিগত তথ্য থাকে যেমন:নাম,জন্ম তারিখ,ইত্যাদি৷

* পুরো পাসওয়ার্ডটাই নাম্বার,বড় হতের অথবা ছোট হাতের অক্ষর করবেন না ৷

* কোন অক্ষর বার বার লিখবেন না(aa11)৷

* কি করে সঠিক পাসওয়ার্ড বাছবেন তার উদাহরণের তালিকা থেকে পাসওয়ার্ড বাছবেন না ৷

* কোন প্রবাদ যা আপনি সবসময় বলেন বা উপদেশ হিসেবে ব্যবহার করেন, কক্ষনই ব্যবহার করা উচিৎ হবে না।

* কিবোর্ড প্যাটার্ন (asdf) অথবা ক্রম সংখ্যার (1234) ব্যবহার করবেন না পাসওয়ার্ডে ৷

* অভিধানে আছে এমন শব্দ বা আদ্যক্ষরা ব্যাবহার করবেন না ৷

আপনার পাসওয়ার্ডকে সুরক্ষিত রাখার জন্য সংকেত:

* কখনও কাহাকেও আপনার পাসওয়ার্ড বলবেন না (যেমন: উল্লেখযোগ্য কেউ,রুমমেট,তোতাপাখী প্রভৃতি)৷

* কখনও আপনার পাসওয়ার্ড লিখবেন না৷

* যদি ভুলে লিখে ফেলেন তাহলে, কালি দিয়ে মুছে আগুনে পুড়িয়ে ফেলুন কিংবা আগুনে পুড়িয়ে তার ছাইভম্ব পৃথক করে বিভিন্ন স্থানে ফেলুন।

* লেখা কাগজের নীচের পৃষ্ঠায় সাধারনত লেখার ছাপ পড়ে। তাই নীচের পৃষ্ঠাও উপরোক্ত উপায়ে ধ্বংশ্ করুন।

* ইমেলের দ্বারা কখনও আপনার পাসওয়ার্ড পাঠাবেন না৷

* এমন কোন শব্দ বা বাক্য পাসওয়ার্ড হিসেবে দেবেন না যা, আপনি সব সময় বলেন বা আপনার প্রিয়। যেমন: সিনেমার কোন Filmy সংলাপ যা সকলে জানতে পারে।

* সমসাময়িক আলোচিত বিষয় সম্পর্কিত পাসওয়ার্ড না দেয়াই ভাল।

* পর্যায়ক্রমে আপনার সাম্প্রতিক পাসওয়ার্ডটি পরীক্ষা করুন,এবং নতুন কোন পাসওয়ার্ড দিয়ে পরিবর্তন করুন৷

আরো জানতে আমাদের সাথেই থাকুন

#  সুরক্ষা প্রশ্ন:

যদি আপনি আপনার পাসওয়ার্ড ভুলে গিয়ে থাকেন,তাহলে অনেকক্ষেত্রে  আপনার সুরক্ষার প্রশ্নটির উত্তর জানতে চাওয়া হয় যা দিয়ে আপনি আপনার পাসওয়ার্ডটি পূনরূদ্ধার করতে পারেন। নীচে কোনো ভাল সুরক্ষার প্রশ্ন ও উত্তর পছন্দ করার সাহায্যকারী কতকগুলি টিপস দেওয়া হল:

* কেবলমাত্র আপনার উত্তর জানা আছে এবং আপনার পাসওয়ার্ডের সঙ্গে যুক্ত নয় এমন কোন প্রশ্ন বাছুন৷

* এমন একটি প্রশ্ন চয়ন করুন যার উত্তর ভেবে দেওয়া যাবে না৷

(উদাহরণস্বরূপ,আপনার মায়ের বিবাহ-পূর্ব নাম,আপনার জন্মের তারিখ, আপনার নাম বা পদবি,আপনার সামাজিক নিরাপত্তা নম্বর,আপনার ফোন নম্বর,আপনার পোষা প্রাণীর নাম,এগুলি এমন প্রশ্ন যা সহজেই ভাবা যাবে৷)

* মনে রাখবার মত একটা উত্তর পছন্দ করুন,কিন্তু সেটাকে যেন সহজে অনুমান করা না যায়৷

* যদি আপনি আপনার নিজের প্রশ্নটি লেখেন,তাহলে যে প্রশ্নের একটা সুস্পষ্ট,সংক্ষিপ্ত,অথবা সাধারণ উত্তর আছে সেগুলোকে বাছবেন না৷

* আপনার উত্তরটি একটা সম্পূর্ণ বাক্য হওয়া উচিত৷

* এমন কোন শব্দ বা বাক্য প্রশ্ন হিসেবে দেবেন না যা, আপনি সব সময় বলেন বা আপনার প্রিয়। যেমন: সিনেমার কোন Filmy সংলাপ যা সকলে জানতে পারে।

আপনার সুরক্ষার প্রশ্ন  উত্তর সুরক্ষিত রাখারকতকগুলি উপায়:

* কোন প্রবাদ যা আপনি সবসময় বলেন বা উপদেশ হিসেবে ব্যবহার করেন, কক্ষনই ব্যবহার করা উচিৎ হবে না।

* লেখা কাগজের নীচের পৃষ্ঠায় সাধারনত লেখার ছাপ পড়ে। তাই যদি ভুলে আপনার পাসওয়ার্ড লিখে ফেলেন তাহলে, লেখা কাগজের পৃষ্ঠা সহ নীচের পৃষ্ঠাও উপরোক্ত উপায়ে ধ্বংশ্ করুন।

* কাউকে এই তথ্যটি বলবেন না এবং এটি লিখবেন না৷

* আপনার প্রশ্ন এবং উত্তর একটি নির্দিষ্ট সময়ের ব্যবধানে বদলান৷

এতকিছুর পরেও Key logger, Hacker, Browser log ইত্যাদি থেকে আপনার গোপন Password টি রক্ষা করতে সতর্কতার বিকল্প নেই।

অতিরিক্ত Security –র জন্য সিকিউরিটি ডিস্ক তৈরি করতে পারেন। আমি সম্ভবত এ বিষয়ে একটা পোষ্ট এই সাইটে দেখেছি। আগ্রহী কেউ পুরানো পোষ্ট খুজে দেখতে পারেন।

আপনি যদি আপনার ব্যবসায়ে বৃহৎ পরিসরে প্রযুক্তির ব্যবহার করেন তবে আপনার উচিৎ হবে একজন নিরাপত্তা বিশেষঙ্গ নিয়োগ দেয়া যে আপনার পাসওয়ার্ড প্রয়োগ-পদ্ধতি Customize করবে।

ইমেইল সহ বিভিন্ন যায়গায় বর্তমানে নিরাপত্তা সিলমোহরের ব্যবহার শুরু হয়েছে। এটি সহ Security নিয়ে আরোকিছু লেখার ছিল কিন্ত মডেমের প্যকেজ শেষপ্রায়। পরে এ সম্পর্কে আরো Post লেখার ইচ্ছা আছে। দোয়া করবেন যেন সকল ভাল কাজে সফল হই।

সুস্থ থাকুন,নিরাপদে পথ চলুন। আল্লাহ্হাফেয।

Follow

Get every new post delivered to your Inbox.

Join 200 other followers